মাসে ১ লক্ষ টাকা আয় করার উপায়

মাসে ১ লক্ষ টাকা আয় করার উপায়

বর্তমান সময়ে. অনলাইন থেকে মাসে ১ লক্ষ টাকা ইনকাম করার কথা হয়তো আপনারা অনেকেই শুনেছেন। তো আপনি চাইলেও কিন্তু প্রতি মাসে ১ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

তো বন্ধুরা আমি হয়তো আপনাকে মাত্র এক লক্ষ টাকার কথা বলেছি। তো আমি আপনাকে যে কাজ গুলোর কথা বা অনলাইন সেক্টর গুলোর কথা জানাবো।

সে কাজ গুলো করে, হয়তো আপনারা লক্ষ টাকার উপরেও উপার্জন করতে পারবেন। তবে, সেই কাজ গুলোর উপর আপনি যদি দক্ষ হয়ে থাকেন।

তাহলে ১০০% গ্যারান্টিতে উপার্জন করতে, পারবেন আনলিমিটেড।

এখন কথা আছে আপনি যদি না জানেন তাহলে কিভাবে কাজ শিখবেন এবং কোথা থেকে শিখবেন।

এছাড়া, আপনি কিভাবে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করবেন যদি এ প্রশ্ন গুলোর উত্তর জানতে চান? তাহলে আমাদের আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত মনোযোগ দিয়ে পড়ুন।

ওয়েবসাইট তৈরি করে টাকা ইনকাম

তো আপনি যদি মাসে ১ এক লক্ষ টাকা আয় করার উপায় খুঁজে থাকেন। তাহলে আপনার জন্য আরও একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে, ওয়েবসাইট তৈরি করে ইনকাম।

আপনারা ১০০% গ্যারান্টিতে ওয়েবসাইট তৈরি করে নিজের ঘরে বসে মাসে ১ এক লক্ষ টাকা থেকে শুরু করে, আনলিমিটেড ইনকাম করতে পারবেন।

তো আপনি যদি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেন। তবে আপনি সেই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে মার্কেটিং করে, টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

নেটওয়ার্ক যুক্ত করে আনলিমিটেড উপার্জন করার সুযোগ পাবেন।

মাসে ১ লক্ষ টাকা আয় করার উপায়
মাসে ১ লক্ষ টাকা আয় করার উপায়

তো এখন কথা আছে, আপনার যদি মনে হয় যে, একটি ওয়েবসাইট তৈরি করলাম, গুগল এডসেন্স বিজ্ঞাপন বসালাম এবং ইনকাম হল কিন্তু google এডসেন্স আমাকে টাকা দিবে কিনা?

আপনার মনে যদি এ প্রশ্ন হয়ে থাকে তাহলে আমি আপনাকে বলব আপনার বিশ্বাস বলতে কিছুই নেই। কারণ আপনি যে কোন জায়গায় গিয়ে গুগলের বিষয়ে নিয়ে সার্চ করে দেখুন।

বা যারা অনলাইনে কাজ করছে, তাদের সাথে যোগাযোগ করুন। ১০০% গ্যারান্টিতে গুগল উপার্জন করা টাকা আপনার ব্যাংক একাউন্টে পৌঁছে দেয়া হবে।

যদি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেন এবং সেই ওয়েবসাইট দিয়ে, বিভিন্ন সেক্টরে এফিলেট মার্কেটিং করেন। সেক্ষেত্রে, অন্ততপক্ষে মাসে ১ লক্ষ টাকা নিজের ঘরে বসে উপার্জন করতে পারবেন।

এছাড়া আপনি যদি ধৈর্য ও সময় দিয়ে কাজ করতে পারেন। তবে লক্ষ টাকার ওপরেও ইনকাম করতে পারবেন প্রতিমাসে।

এছাড়া আপনি যদি ওয়েবসাইট সম্পর্কে কিছু না বুঝেন সে ক্ষেত্রে কোন চিন্তা নেই? আমাদের এ ওয়েবসাইটে এমন একটি আর্টিকেল পাবলিশ করা রয়েছে। যেখানে অনলাইন কোর্স করে আপনারা সহজেই ওয়েবসাইট পরিচালনা করতে পারবেন।

তো আপনি যদি ওয়েবসাইট তৈরি করে মাসে ১ লক্ষ টাকা উপার্জন করতে চান? তাহলে আমাদের দেওয়া অনলাইন ইনকাম কোর্স কিনতে পারেন।

অনলাইন ইনকাম সেরা কোর্স কিনতে ক্লিক করুন

ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে টাকা আয়

আপনি যদি অনলাইনের মাধ্যমে মাসে ১ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে চান? তাহলে youtube চ্যানেল নিয়ে কাজ করতে পারেন। এক্ষেত্রে ইউটিউব নিয়ে কাজ করতে চাইলে হয়তো আপনার একটু বেশি সময় লাগতে পারে।

ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে আপনাকে ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও আপলোড করতে হবে। এবং সকল ভিডিও আপনার নিজস্ব হতে হবে। কোন কপিরাইট বা কারো ভিডিও চুরি করে, আপনার ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করতে পারবেন না।

Youtube থেকে টাকা ইনকাম করার জন্য চ্যানেলের জন্য, অবশ্যই হাই কোয়ালিটি ভিডিও ক্রিয়েট করতে হবে।

এছাড়া আপনার চাইলে youtube চ্যানেলে, বিভিন্ন উপায় ব্যবহার করে ইনকাম করতে পারবেন। তো তার মধ্যে বর্তমান সময়ে লোকেরা youtube চ্যানেল তৈরি করে সেখানে ভালো ভালো ভিডিও আপলোড করে গুগল এডসেন্স বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ইনকাম করছে।

তাই আপনি যদি চান, ইউটিউব চ্যানেল থেকে ইনকাম করবেন তাহলে গুগল এডসেন্সের বিজ্ঞাপন ব্যবহার করতে পারেন।

তো গুগল এডসেন্সের বিজ্ঞাপন ব্যবহার করার জন্য অবশ্যই আপনাকে কিছু শর্ত পালন করতে হবে। আর সেই শর্তগুলো হচ্ছে-

Youtube চ্যানেলে এক বছরের মধ্যে এক হাজার সাবস্ক্রাইব থাকতে হবে।

ইউটিউব চ্যানেলে এক বছরের মধ্যে ৪ হাজার ওয়াশ টাইম থাকতে হবে।

তো আপনার যদি এই দুইটি শর্ত পূরণ করতে পারেন,  তো আমরা বলেছি মাসে ১ লক্ষ টাকা ইনকাম কিন্তু এখানে আপনি আনলিমিটেড ইনকাম করতে পারবেন।

এমনও অনেক মাস যাবে যে মারগুলোতে আপনি 5 থেকে 10 লক্ষ টাকা উপার্জন করতে পারবেন ইউটিউব ভিডিও আপলোড করে।

অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস তৈরি করে টাকা ইনকাম

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশে বসবাস করে মাসে ১ লক্ষ টাকা ইনকাম করা অনেক সহজ হয়ে গেছে। আপনারা হয়তো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি করে টাকা ইনকাম করার বিষয় শুনেছেন।

আর সে বিষয়ে শুনে হয়তো আপনি অবাক হয়ে গেছেন বা আপনি ভাবছেন। আপনি তো কখনো অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি করে দেখেননি।

বা আপনি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি করতে পারেন না। এই কথা গুলো যদি আপনার মনে চিন্তা হয়। তবে আপনি এই চিন্তা বাদ দিয়ে আপনি এখন চিন্তা করুন।

কিভাবে আপনি একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস তৈরি করবেন। এবং আপনি যদি আনলিমিটেড টাকা উপার্জন করতে চান? তাহলে আশা করা যায় আপনারা প্রতি মাসে ১ লক্ষ টাকা উপার্জন করতে পারবেন অনায়াসে।

কিভাবে একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ একদম ফ্রিতে তৈরি করা যায়। এবং সেই অ্যাপ কিভাবে আপনি গুগল প্লে স্টোরে পাবলিশ করবেন।

এবং সেই অ্যাপস এ আপনি গুগল এর বিজ্ঞাপন বসিয়ে কিভাবে টাকা আয় করবেন। সেই বিষয়ে আমরা বিস্তারিত জানাবো।

আর আপনি যদি ধৈর্য সহকারে, আমাদের লেখাগুলো পড়তে থাকেন তাহলে আশা করা যায় আপনি সম্পূর্ণ তথ্য গুলো জেনে নিতে পারবেন।

যে কিভাবে একটি এন্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি করবেন এবং সেই অ্যাপ থেকে আপনি আনলিমিটেড টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

তো আপনার বিশ্বাস নাও হতে পারে কিন্তু একটি কথা শুনে রাখুন। যদি বিশ্বাস না হয়, আপনি কখনো জীবন যুদ্ধে জয়ী হতে পারবেন না। আপনি হয়তো অনেক গুলো অ্যাপস google প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করেছেন ।

তবে সেই অ্যাপস গুলো চালু করার পর কিছু বিজ্ঞাপন আসে। বিজ্ঞাপন ছাড়া কোন অ্যাপস নেই? কিন্তু কেন এই বিজ্ঞাপন গুলো আসে আপনি কি জানেন।

উক্ত বিজ্ঞাপন গুলো আসার একমাত্র কারণ হলো- যারা এন্ড্রয়েড অ্যাপস টা ক্রিয়েট করে, তাদের ইনকাম করার জন্য। কারণ যদি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস ডেভলপ করে কোন আয় না থাকে। তবে অযথা কেন এই অ্যান্ড্রয়েড এপস গুলো ডেভলপারা অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস তৈরি করবে।

কারণ বর্তমান সময়ে, একটি অ্যাপস তৈরি করলে, সেই অ্যাপস থেকে অনেক টাকা উপার্জন করা যায়। তাই আপনি দেখুন প্লে স্টোরে গিয়ে হাজার হাজার থেকে শুরু করে, কোটি কোটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপস পড়ে রয়েছে। যদি অন্য লোকেরা অ্যাপস তৈরি করে টাকা ইনকাম করতে পারে। আপনি কেন পিছিয়ে থাকবেন।

তো আমাদের পরামর্শ অনুযায়ী আপনি যদি মনে করেন, মাসে ১ এক লক্ষ টাকা আয় করবেন সেক্ষেত্রে অবশ্যই এন্ড্রয়েড অ্যাপস তৈরি নিয়ে কাজ শুরু করে দিতে পারেন।

ফেসবুক পেজ থেকে টাকা ইনকাম

বর্তমান সময়ে আপনারা হয়তো সকলেই একটি হলেও ফেসবুক আইডি ব্যবহার করেন। তো অনেকে প্রশ্ন করে থাকে যে সত্যি কি ফেসবুক পেজ থেকে ইনকাম করা যায়।

হ্যাঁ অবশ্যই আপনি চাইলে ফেসবুক পেজ থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। ফেসবুক পেজ থেকে টাকা ইনকাম করা অনেক সহজ হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। কারণ এখন আর আগের মত, ফেসবুক পেজে বেশি বেশি ভিউয়ার প্রয়োজন হয়না এবং ওয়াচ টাইমের প্রয়োজন হয় না।

তো ফেসবুক থেকে ইনকাম করার কিছু অ্যালগরিদম রয়েছে অবশ্যই আপনি যে কোন মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে চান না কেন তার কিছু না কিছু নিয়ম কানুন করতে হবে।

ফেসবুক থেকে টাকা আয় করার জন্য বর্তমান সময়ে ফেসবুক এর অ্যালগরিদম, হিসেবে ৩০ যার ফলোয়ার থাকতে হবে। তাহলে আপনারা সহজে ফেসবুক পেজ মনিটাইজেশন করে প্রতি মাসে আনলিমিটেড উপার্জন করতে পারবেন।

এছাড়া আপনি যদি ফেসবুকে বিজ্ঞাপন নেটওয়ার্ক ছাড়া টাকা ইনকাম করতে চান? সেক্ষেত্রে, বিভিন্ন এফিলিয়েট মার্কেটিং বা ডিজিটাল মার্কেটিং করে টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

আর আপনি বড় বড় মার্কেটিং কোম্পানির সাথে যোগাযোগ স্থাপন করে তাদের পণ্যগুলো বিক্রি করে প্রতি মাসে ১ এক লক্ষ টাকা আয় করতে পারবেন।

শেষ কথাঃ

আমাদের আজকের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাদের জানিয়ে দেয়া হলো- মাসে ১ লক্ষ টাকা আয় করার উপায়।

তাই আপনি যদি প্রতিমাসে টাকা উপার্জন করতে চান? তাহলে উপরোক্ত যে কোন একটি অনলাইন সেক্টর বেশি নিয়ে কাজ শুরু করে দিতে পারেন।

তো আমাদের লেখা আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়ার পর আপনার কাছে যদি ভালো লেগে থাকে। তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

আমাদের এই ওয়েবসাইট থেকে অনলাইন ইনকাম সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য পেতে নিয়মিত ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top